পরিচিতি

আমরা জীবনবাদী। আমরা মানুষের জীবন ও জীবিকার উৎকর্ষতার জন্যে নিবেদিত। রাজনীতি জীবনের বড় একটা অংশ দখল করে থাকলেও আজ মানুষ রাজনীতির মাধ্যমে তাদের জীবনে পরিবর্তন আনার সে স্বপ্নকে জলাঞ্জলি দিতে বাধ্য হচ্ছে। তাই রাজনীতিকে পাশ কাটিয়ে নয়, সুবিধামত গা বাঁচিয়ে নয়, আমরা রাজনীতির দিকে সদা জাগ্রত চোখ রেখে এগিয়ে যেতে চাই জীবনকে গড়ে তোলার সেই উৎকর্ষতার মেলায়। সেই বৈশ্বিক স্বপ্ন-মেলায় হাজির হওয়াই আমাদের প্রচেষ্টা। এই ক্ষুদ্র শ্রমের মাধ্যমে আমাদের সেই প্রচেষ্টা অব্যাহত থাকবে।       

সবার প্রথমে আসে মানুষের লৈঙ্গিক পরিচিতির বিষয়। দেশের অর্ধেক জনসংখ্যা নারী। এই অর্ধেক জনগোষ্ঠী রেখে কোন উন্নয়ন, নীতিনির্ধারণ, সংঘ, জমায়েত একটা ভারসাম্যহীন অবস্থার সৃষ্টি করবে একথা বলার অপেক্ষা রাখে না। নারীবাদ বা পুরুষতন্ত্রের দোহাই দিয়ে একে অপরের প্রতি অক্রমনাত্বক দৃষ্টিভঙ্গি পরিত্যাজ্য। এই ক্ষুদ্র প্রকাশনাটিতে সেই ভারসাম্যপূর্ণ দৃষ্টিভঙ্গির প্রতিফলন ঘটবে এমনটাই আশা রাখি। একই ভাবে বিশ্বাস বা ধর্মের ব্যাপারটাও এসে যায়। ধর্ম ও সংস্কৃতি এমন দুই বিষয়, যেখানে ভাল মন্দ দুটো বিষয়ই থাকতে পারে। দিবে আর নিবে, মিলাবে মিলিবে- এই পথেই সাংস্কৃতিক উন্নয়ন সম্ভবপর। বিশ্বাসের প্রতি আক্রমণাত্মক চিন্তা চেতনা পরিত্যাগ করে যৌক্তিক উপায়ে ভাল-মন্দের উপস্থাপনই হবে আমাদের প্রকাশনার আরেকটা দিক নির্দেশনা। রাজনীতির ব্যাপারেও আমাদের সেই একই চিন্তা ভাবনা। রাজনীতি ও ধর্মের অপসংস্কৃতি যেমন একদিনে গড়ে উঠে না, তেমনি একদিনেই তা অপসৃত হবার নয়। রাতারাতি পরিবর্তনের হাওয়া তৈরি করতে গেলে সামাজিক ভারসাম্য নষ্ট হবার সম্ভাবনা প্রচুর। আমাদের সমালোচনার প্রকৃতি হবে গঠনমূলক, যৌক্তিক ও সহণশীল। আমাদের এই প্রকাশনার প্রচেষ্টা অব্যাহত থাকবে সকল সামাজিক অসংগতির সংশোধনের জন্যে সহনশীল মাত্রায় সমালোচনা ও কাজ করে যাওয়া এবং জীবন মানের উন্নয়নে অবদান রাখা।

কি কি বিষয় থাকবে এই প্রকাশনায়? এখানে থাকবে- সাহিত্য, বিজ্ঞান, লাইফ-স্টাইল, পরিবার, নারী, আইন, স্বাস্থ্য, প্রবাস, পেশা ও উদ্যোগ, সংস্কৃতি ইত্যাদি নানাবিধ বর্ণাঢ্য বিষয়। 

 

image001