অবসেশন কি একটা অসুখ!


khali

লিখেছেন- শেখ খলিল শাখা নির্ভানা

 

একটা ভয়ানক মনস্তাত্ত্বিক অসুখ আছে, যার নাম- অবসেসিভ কম্পালসিভ পারসোনালিটি ডিসওর্ডার বা সংক্ষেপে ও সি পি ডি। এই অসুখে যারা ভুগেন, তারা চরমভাবে পারফেকশনিস্ট, চরম শৃঙ্খলাবদ্ধ, ভয়ংকর রকমের শুদ্ধিবাদী, তাদের নিজেদের যুক্তিতে। তারা তাদের এই চরমবাদী জগতটাকে সবার ভিতরে প্রতিফলিত হতে দেখতে চায় এবং তার জন্যে পরিশ্রম করে, শক্তি প্রয়োগ করে এমনকি সহিংসও হয়ে উঠে। যেহেতু এটা একটা ব্যক্তিত্ব বৈকল্য বা পারসোনালিটি ডিসওয়ার্ডার, তাই তাদের এই চরিত্র বা অসুখ গড়ে ওঠে কোন আইকনকে আইডল মেনে বা গুরু মেনে। এই আইকন হতে পারে কোন এক বা একাধিক বই, বা কোন মানুষ। এই রোগে আক্রান্ত লোকেরা সবখানে এই আইকনের উপস্থিতি দেখতে পায় বা জীবনের সব সমস্যার সমাধান এই আইকনের মাধ্যমে সম্ভব বলে অত্যন্ত দৃড়তার সাথে মনে করে। অন্য কোন আইডলের উপস্থিতি এরা সহ্য করতে পারে না। এই রোগে যেমন ব্যক্তি আক্রান্ত হতে পারে, তেমনি সমষ্টিও হতে পারে ধরাশায়ী। তখন তা কালেক্টিভ সিকনেস হিসাবে অন্য জাতির ক্ষতি সাধনে ব্রতী হয়, উদার ও সার্বজনীন আইডীওলজির নামে।

অবসেশন একটা মানসিক বৈকল্য। ওয়েবার ডিকশনারিতে এর অর্থ করা হয়েছে অনেকটা এইভাবে- the domination of one’s thoughts or feelings by a persistent idea, image, desire, etc. এই OCPD-এর চিকিৎসা এবং থেরাপী রয়েছে। কিভাবে এই রোগের উৎপত্তি হয়? ব্যক্তিগত সাপ্রেসিভ ও ডমিনেটিভ চিন্তা থেকে যে ডিসওর্ডার তৈরি হয়, সেটা বাদ দিয়ে কালেকটিভ সিকনেস উৎপত্তির কারণ অনুসন্ধান করা যেতে পারে। এটা হতে পারে ঐতিহাসিক কোন চরিত্রের সম্মোহনী ক্ষমতার মাধ্যমে, বা কোন কনট্রাস্টেড ডকট্রিনের ডমিনেশনের মাধ্যমে বা কোন পুস্তকের অবসেশনের মাধ্যমে। এর ফলে অনেকগুলো মানুষ একসাথে তাদের আইকনকে জীবনের প্রতিটা রন্ধ্রে রন্ধ্রে হাজির নাজির দেখতে পায়। এই কালেকটিভ ওসিপিডি তৈরিতে ঐতিহাসিক এইসব আইকনের নেতিবাচক অবদানের কথা বাদ দেয়া যায় না।

image005

একটা কথা প্রচলিত আছে- যদি কোন বড় প্রতিভা বা চরিত্র দ্বিতীয় কোন প্রতিভা তৈরিতে সহায়ক ভূমিকা পালন না করতে পারে, তবে ঐ প্রতিভা ভাল কোন ভবিষ্যতের ইঙ্গিত বহণ করে না। যত কণ্ট্রাস্টেড হোক না কেন, নতুনের আলোতে আসার পথ যেন অনুকূল হাওয়া পায়, এই হওয়া উচিৎ বিদ্যমান প্রতিভার অনেকগুলো দায়িত্বের মধ্যে একটা। কারণ সময় তার সব কিছু সাথে নিয়ে এগিয়ে চলে, কিন্তু নতুন আইডলের অনুপস্থিতিতে অচল মূদ্রার মত পুরানো আইডল মানুষের মনের উপরে সিসার অচ্ছেদ্য ঢালাইয়ের মত চেপে বসে তৈরি করতে পারে কালেকটিভ OCPD. মানুষের জীবন এত ছোট কিছু নয়, যে একটা বই, কয়েক গুচ্ছ ডকট্রিন তার উপরে চাপিয়ে দিয়ে বললাম, যাও আজ থেকে তোমাকে পরিপূর্ণ করে দিলাম। এই সামস্টিক অসুস্থ্যতা মানুষকে এইভাবে ভাবতে শেখায়। এর থেকে বাঁচার উপায় আছে, তবে তা বেশ শক্ত।

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  Change )

Google photo

You are commenting using your Google account. Log Out /  Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  Change )

Connecting to %s